This site is best viewed using the updated version of Mozilla Firefox

Why to attend at bdNOG event?

আপনি কেন বিডিনগ (bdNOG) এ অংশগ্রহণ করবেন?

bdNOG এ কেন অংশগ্রহণ করবেন তা বলার আগে একটু bdNOG সম্পর্কে বলতে হয়। Bangladesh Network Operators Group বা সংক্ষেপে bdNOG হলো বাংলাদেশের নেটওয়ার্কিং সেক্টরে কর্মরত প্রফেশনালদের সর্বোচ্চ একটি ফোরাম বা জমায়েত। এখানে প্রফেশনাল বলতে নেটওয়ার্কিং সেক্টরে কর্মরত একজন সিস্টেম সাপোর্ট ইঞ্জিনিয়ার থেকে শুরু করে একজন চীফ টেকনোলজি অফিসার (CTO) বা তারও উপরে কর্মরত সবাইকেই বুঝায়।

কেন এই bdNOG?

বাংলাদেশে আই.এস.পি সেক্টরের একেবারে শুরুর দিকে যারা এই সেক্টরে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তাদের জন্য ঐসময়ে বিভিন্ন ইন্টারনেট অপারেশনাল টেকনিকগুলো সম্পর্কে জানার সুযোগ ছিল খুব সীমিত। কারণ, ঐসময়ে পর্যাপ্ত ট্রেইনিং কোর্স বা লার্ণিং ম্যাটেরিয়াল ছিল না। কিন্তু বর্তমানে আমরা যারা কাজ করছি তাদের জন্য ট্রেইনিং কোর্স বা লার্ণিং ম্যাটেরিয়াল এর অভাব নেই। এর মধ্যে আবার অনেক কিছু Google সার্চ দিলেই ফ্রি ফ্রি পাওয়া যায়। তো ঐসময়ে বিভিন্ন কোম্পানী অনেক টাকা খরচ করে তাদের ইঞ্জিনিয়ারদেরকে বিদেশ থেকে ট্রেইনিং করিয়ে আনতো। কিন্তু শুধুমাত্র গৎবাধা ট্রেইনিং দিয়েই সবকিছু শেখা সম্ভব হয় না। এজন্য দরকার প্রফেশনালদের মধ্যে এক ধরণের নেটওয়ার্কিং। এই ধারণা থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বা রিজিওনের অন্যান্য Network Operators Group (NOG) এর অনুকরণে ২০০৩ সালে South Asian Network Operators Group (SANOG) প্রতিষ্ঠা লাভ করে।

SANOG প্রতিবছর দুইটি আন্তর্জাতিক ইভেন্টের আয়োজন করে থাকে যার প্রথম ইভেন্টটি হয়েছিল ২০০৩ সালে নেপাল এর রাজধানী কাঠমুন্ডুতে। SANOG এর এই ইভেন্টগুলোতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর হ্যান্ডস-অন ওয়ার্কশপ ছাড়াও বিভিন্ন সেমিনার, প্রেজেন্টেশন ইত্যাদি হয়ে থাকে, যেগুলোতে অংশগ্রহন করে সাউথ এশিয়া রিজিওনের বিভিন্ন দেশ এমনকি এই রিজিওনের বাইরে থাকা বিভিন্ন দেশের ইঞ্জিনিয়াররা তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি করেছেন। এই ইভেন্টগুলোতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানের এক্সপার্টরা বিভিন্ন টেকনিক্যাল সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও বিভিন্ন ভেন্ডরসমূহ তাদের তৈরীকৃত প্রোডাক্ট ও লেটেষ্ট টেকনোলজি সবার সামনে প্রদর্শন করে থাকে।

কিন্তু সমস্যা হলো, SANOG এর এই ইভেন্টগুলোর একটি হয় ভারতে আবার পরবর্তী ইভেন্ট হয় ভারতের বাইরে যেমনঃ বাংলাদেশ, পাকিস্থান, নেপাল সহ সাউথ এশিয়া রিজিওনের অন্যান্য দেশে (কারণ ভৌগলিকভাবে ভারত অনেক বড় একটি দেশ)। সে হিসেবে SANOG এর একটি ইভেন্ট প্রায় ৪/৫ বছর পর পর বাংলাদেশে হয়। ফলে শুধুমাত্র SANOG এর উপর নির্ভর করে বাংলাদেশের প্রফেশনালদের চাহিদা পূরণ হচ্ছিলো না। কারণ দেশের বাইরে কোন SANOG ইভেন্টে অংশগ্রহণ করার জন্য আসা-যাওয়ার ভাড়া, থাকা-খাওয়ার খরচ অনেকের পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়। এই সমস্যা দূরীকরণের লক্ষ্যে বাংলাদেশে bdNOG এর যাত্রা শুরু হয় ২০১৩ সালে।

bdNOGও প্রতিবছর দুইটি ইভেন্ট আয়োজন করে থাকে; এর একটি হয় রাজধানী ঢাকায় এবং পরেরটি হয় ঢাকার বাইরে অন্য কোন জেলায় (বাই রোটেশন বেসিস)। এর মধ্যে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ইভেন্টটি হয় আন্তর্জাতিক মানের, কারণ এই ইভেন্টে এশিয়া-প্যাসিফিক রিজিওন ও এর বাইরের বিভিন্ন দেশের আন্তর্জাতিক এক্সপার্টরা আসেন ট্রেইনিং করাতে ও ট্রেইনিং করতে। আর ঢাকার বাইরের ইভেন্টটি হয় একটু নিজস্ব ঘরানার অর্থাৎ লোকাল ইভেন্ট। লোকাল ইভেন্ট হলেও এখানে দেশের বিভিন্ন কোম্পানীতে কর্মরত এক্সপার্টরা আসেন নিজেদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য। এছাড়াও bdNOG প্রতিষ্ঠা এবং পরিচালনার সাথে যারা যুক্ত তাদের অনেকেই আন্তর্জাতিক মানের ব্যক্তিত্ত্ব। তাদের মধ্যে সুমন আহমেদ সাবির স্যার, নুরুল ইসলাম রোমান ভাই, ফকরুল আলম পাপ্পু ভাই, সাইমন ভাইয়ের নাম বিশেষভাবে উল্লেখ করার মতো। তাঁরা নিজেদের কর্মগুনে দেশ ও দেশের বাইরে অত্যন্ত পরিচিত মুখ। আর NOG হিসেবে bdNOG এর নাম আমাদের এশিয়া-প্যাসিফিক রিজিওনের অন্যান্য দেশের লোকজন একটু সমীহের সাথেই উচ্চারণ করে থাকে।


* ছবিগুলো বিডিনগ এর ওয়েবসাইট থেকে সংগৃহীত

এই বারের bdNOG এর ৬তম ইভেন্টটি হতে যাচ্ছে বগুড়া তে। চলতি মে মাসের ১৯ থেকে ২৩ তারিখ পর্যন্ত ইভেন্টটি চলবে, যার মধ্যে ১৯ তারিখ হলো কনফারেন্স এবং ২০ থেকে ২৩ তারিখ পর্যন্ত হলো ওয়ার্কশপ। এইবার দুইটি ট্র্যাকে ওয়ার্কশপ হবে (রাউটিং এবং সিস্টেম এ্যাডমিনিষ্ট্রেশন)। আপনারা এই ইভেন্টের আরো বিস্তারিত তথ্য bdNOG এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট (http://bdnog.org/bdnog6/index.php) এ পাবেন।

bdNOG এর ইভেন্টে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আপনি নেটওয়ার্কিং জগতের অনেক অজানা এবং লেটেষ্ট তথ্য পাবেন। এছাড়াও এই ইভেন্টে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আপনি অন্যান্য আন্তর্জাতিক ইভেন্ট যেমনঃ SANOG, APNIC, APRICOT ইত্যাদি সম্পর্কে ধারণা পাবেন। bdNOG এর ইভেন্ট থেকে অর্জিত জ্ঞান প্রফেশনাল লাইফে আপনার অনেক কাজে লাগবে। এই ইভেন্টে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন ধরণের মানুষের সাথে আপনি জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করতে পারবেন। এছাড়াও SANOG, APNIC, APRICOT ইত্যাদি অর্গানাইজেশনগুলো প্রতিবছর তাদের ইভেন্টগুলোতে অংশগ্রহন করার জন্য এই রিজিওনের প্রফেশনালদের Fellowship প্রদান করে থাকে। এই Fellowship এর আওতায় প্রফেশনালরা সম্পূর্ণ বিনা খরচে তাদের ইভেন্টগুলোতে অংশগ্রহণ করতে পারে। এক্ষেত্রে আসা-যাওয়া, থাকা-খাওয়ার খরচ সমূহ আয়োজনকারী কর্তৃপক্ষই বহন করে থাকে। bdNOG এর ইভেন্টে অংশগ্রহণ করলে আপনার এই ধরণের Fellowship পাওয়ার সম্ভবনা বৃদ্ধি পাবে। কারণ, Fellowship প্রদানের সময় এই ধরণের অর্গানাইজেশনসমূহ দেখে যে, আপনি আপনার লোকাল NOG ও কমিউনিটির সাথে কতটা কানেক্টেড আছেন।

আর bdNOG এর ইভেন্টে অংশগ্রহণের ফি খুব বেশি নয়। যারা টাকার কথা চিন্তা করেন তাদেরকে বলছি, আপনি এই ইভেন্টে অংশগ্রহণের জন্য যে টাকা পে করবেন, সে পরিমাণ টাকা বা তার চাইতেও বেশি টাকা bdNOG কর্তৃপক্ষ আপনার খাওয়ার পেছনেই খরচ করে। আর ওয়ার্কশপের জ্ঞান তো সম্পূর্ণ ফ্রি!!

যারা সময়ের অভাবে ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না, তারা অন্ততপক্ষে কনফারেন্সে অংশগ্রহন করতে পারেন। সকলকে ধন্যবাদ… বগুড়াতে দেখা হবে ইনশা-আল্লাহ।

#bdNOG6

তারিখঃ ১০-০৫-২০১৭ইং